জাতীয়

ব্লু হোয়েলে আক্রান্ত বাংলাদেশ!

মাহবুব নাহিদ:

আজ বাংলাদেশে মহামারী আকারে দেখা দিলো এই ব্লু হোয়েল গেম। হঠাৎ করে এই গেম এসে আমাদের যুবসমাজ কে ধবংসের পথে টেনে নিয়ে যাচ্ছে। এই গেমের মাধ্যমে সবাইকে হিপনোটাইজের মত করা হয় যার ফলে গেমের স্টেপ অনুযায়ী সিদ্ধান্ত নিতে থাকে। যে কোন কঠিন সিদ্ধান্তই হোক না কেন! এমনকি এমনকি এর শেষ ধাপে সুইসাইডের মত জঘন্য ঘটনা রয়েছে। বিটিআরসির নাকি কিছুই করার নেই। তাই এই গেম থেকে আমাদের সরে আসার দায়িত্ব সামাজিক এবং পারিবারিক ভাবে নিতে হবে। তবে এর দ্বায় আমাদের বর্তমান সমাজব্যবস্থা কোনভাবেই এড়াতে পারেনা,এমনকি পরিবারও না। ছোট বয়সে অবসর সময়ে যেখানে গল্পের বই,মাঠে খেলাধুলা করার কথা সেখানে আমাদের প্রজন্ম ইন্টারনেটের দাস হয়ে যাচ্ছে। শারীরিক ভাবেও দৃঢ়তা হারাচ্ছে এমনকি মানসিকভাবেও। নগরায়নের এই যুগে আমরা বাচ্চাদের খেলার মাঠ দিতে পারছি না। আজ বাচ্চাদের হারমোনিয়াম তবলা বাজানো শেখানো হয়না আজ শেখানো হয় গেম,ফেসবুক, টুইটার ইত্যাদি। মস্তিষ্ককে বাচ্চারা সৃজনশীলতার দিকে ধাবিত করার কোন সুযোগ পাচ্ছে না নতুন প্রজন্ম। তাই এখনি সময় ঘুরে দাঁড়াবার,আগাতে গিয়ে যেন আমরা পিছিয়ে না যাই। প্রযুক্তির দাস হয়ে গিয়ে নিজেদের বিসর্জন না দিয়ে ফেলি সেই দিকে তীক্ষ্ণ খেয়াল রাখতে হবে।