আন্তর্জাতিক

মারা গেছে সিরিয়ার আলেপ্পোর শিশু ওমরানের ভাই

সিরিয়ার আলেপ্পো শহরে উদ্ধার হওয়া যে শিশুর ছবি বিশ্বকে হতবাক করে দিয়েছে, সেই ওমরান দাকনিশের বড় ভাই মারা গেছে। আলী দাকনিশ নামে দশ বছর বয়সী শিশুটি বোমা হামলায় গুরুতর আহত হয়েছিল। যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম বিবিসি এক প্রতিবেদনে এমন তথ্যই জানিয়েছে।

মানবাধিকার সংগঠন সিরিয়া সলিডারিটি ক্যাম্পেইন জানিয়েছে, রাশিয়ার বোমার আঘাতে দাকনিশ পরিবারের বাড়িটি বিধ্বস্ত হয়। একজন প্রত্যক্ষদর্শীর বরাত দিয়ে রয়টার্স বলছে, ১৭ই আগস্ট ওই বোমা হামলার কারণে শরীরের ভেতরে অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া এবং অভ্যন্তরীণ রক্তক্ষরণ আলীর মৃত্যুর কারণ।

পাঁচ বছরের শিশু ওমরান দাকনিশকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।

সিরিয়ায় বিদ্রোহীদের দখলে থাকা এলাকাগুলোতে রাশিয়া এবং সিরিয়ার সরকারি বাহিনীর যুদ্ধ বিমান থেকে ব্যাপকভাবে হামলা চালানো হচ্ছে। তবে ওমরান দাকনিশের বাড়িতে কোনো হামলার কথা অস্বীকার করেছে রাশিয়া।

শিশু ওমরানের ছবি প্রকাশের পর তা অনেককেই স্মরণ করিয়ে দেয় শিশু আয়লানের কথা। সামাজিক মাধ্যমে তেমন অনেক বক্তব্যই উঠে আসে।

এমনই হামলায় বিধ্বস্ত একটি বাড়ির ধূলা ময়লা থেকে পাঁচ বছর বয়সী ওমরানকে রক্তাক্ত ও আহত অবস্থায় বের করে আনা হয়। তার সেই ছবি ও ভিডিও আলেপ্পো শহরে আটকে পড়া বেসামরিক মানুষদের দুঃখ-দুর্দশার প্রতীকী চিত্র হয়ে উঠেছে, যা সারা বিশ্বকে হতবাক করে দেয়।

ভিডিও চিত্রে দেখা যায়, রক্তাক্ত, সারাগায়ে ধূলি মাখা ভীত শিশু ওমরান একটি অ্যাম্বুলেন্সের সিটে বসে রয়েছে, একটু পরেই সে নিজের মুখে হাত বুলিয়ে রক্ত দেখতে পেয়ে চমকে ওঠে।

এই ভিডিও আর ছবি প্রকাশ করে সিরিয়ার বিদ্রোহীরা। এখন এলো তার ভাইয়ের মৃত্যুর খবর।

সিরিয়ার এক সময়কার শিল্প ও বাণিজ্য নগরী হিসেবে খ্যাত আলেপ্পোতে কয়েক সপ্তাহ ধরেই সিরিয়ান বিদ্রোহী আর সরকারি বাহিনীর মধ্যে লড়াই চলছে। সহিংসতায় কয়েকশ মানুষ নিহত হয়েছে বলে জানা গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *